বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

আপডেট
*** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***                     *** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***
সংবাদ শিরোনাম :
শার্শার সাতমাইল পশু হাটে ব্যাপক অনিয়ম নিরব উপজেলা প্রশাসন! বেনাপোলে অনলাইন প্রতারক চক্রের দুই সদস্য আটক বেনাপোলে রাজস্ব কর্মকর্তার উপর হামলাকারীদের আটকের দাবিতে মানববন্ধন চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের তৎপরতায় মাদক সহ চালক গ্রেপ্তার চাকরি হারালেন ঘুষের টাকা সহ আটক কাস্টম কর্মকর্তা মুকুল বেনাপোলে প্রশাসনকে বোকা বানাতে স্বর্ণ চোরাকারবারিদের লোক দেখানো ব্যবসা বেনাপোলে কৃত্রিম যানজটের শিকার ৪ গ্রামবাসি সহ ভারতগামী পাসপোর্ট যাত্রীরা বাসার দরজার তালা ভেঙ্গে কয়েক লক্ষ টাকার স্বর্ণালঙ্কার লুট, থানায় অভিযোগ দায়ের ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে গ্যাস সিলিন্ডার রিফিল করা হচ্ছে সোনাইমুড়ীতে যৌতুকের মামলায় স্বামী শ্রীঘরে

গোবিন্দগঞ্জে চাঁদাবাজী মামলার আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদীর পরিবার নিরাপত্তাহীনতায়

গোবিন্দগঞ্জে চাঁদাবাজী মামলার আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদীর পরিবার নিরাপত্তাহীনতায়

গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চাঁদাবাজী মামলার আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে অভিযোগ।
থানার মামলা সুত্রে জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাখালবুরুজ ইউনিয়নের চাঁদপুর সিংগা গ্রামের মৃত-আঃ কুদ্দুছ মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম ও বড় ভাই রফিকুল ইসলামের সাথে একই গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে লেবু মিয়া (২৭) ও স্বপন মিয়া (২৪), মৃত-বছির উদ্দিনের ছেলে আমিরুল ইসলাম ( ৬০), আদম আলীর ছেলে শিমুল মিয়া (২৭), লিমন মিয়া (৩০), আব্দুল গফুরের ছেলে হিরো মিয়া (২২), আবুল হোসেনের ছেলে হাবিজার রহমান (৫৫) ও ছিদ্দিক (৪০) হাবিজার রহমানের ছেলে জিহাব মিয়া (২২), আঃ জলিলের ছেলে আঃ আজিজ (২২) গংদের সাথে জমাজমি নিয়া দ্বন্দ চলে আসছে। ঘটনার তারিখ ২৫ জুলাই/২১ সকল আসামী বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়া মামলার বাদী শফিকুল ইসলামের বড় ভাই প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষক রফিকুল ইসলাম এর কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। দাবীকৃত চাঁদার টাকা না দিলে জমির ফসল ও গাছপালা বৃক্ষাদি কাটিয়া বিনষ্ট করার হুমকি দেয়। তখন নিরুপায় হয়ে রফিকুল ইসলাম তার কাছে থাকা ৫ হাজার টাকা দিয়ে ঘটনার স্থান ত্যাগ করতে বলে চাঁদাবজির প্রধান আসামী লেবু মিয়াকে। কিন্তু লেবু মিয়া ঘটনার স্থান ত্যাগ না করে সকল আসামীকে হুকুম দেয় জমির মধ্যে রফিকুল ইসলামকে মেরে পুতে ফেলার। তার এই বেআইনী হুকুম পাইয়া রফিকুল ইসলামের উপর হামলাা চালিয়ে মারপিট করতে থাকে। তাদের এই হামলায় সে গুরুত্বর আহত হয়ে মৃতুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। শফিকুলের মেয়ে সুমাইয়া তার বড় জ্যাঠাকে বাঁচাতে আগাইয়া গেলে তাকে বে-ধড়ক মারপিট করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। এ ঘটনায় শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং-৪৭, তারিখ-২৮ জুলাই/২১। মামলা হওয়ার পরে পুলিশ আসামী গ্রেফতার করতে না পারায় বাদী সহ তার পরিবারকে আসামীরা মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন হুমকি অব্যাহত রেখেছে বলে বাদীর অভিযোগ। বর্তমানে বাদীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD