মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০২:০৭ অপরাহ্ন

আপডেট
*** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***                     *** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***

বেনাপোলে শরিক ফাঁকির পায়তারায় বিল্ডিং ঝুঁকিপূর্ণ বলে অপপ্রচার!

বেনাপোলে শরিক ফাঁকির পায়তারায় বিল্ডিং ঝুঁকিপূর্ণ বলে অপপ্রচার!

সুমন হোসাইনঃ

বেনাপোল পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড ভবেরবেড় ষ্টেশনরোডের মুখে আবস্থিত মৃত আব্দুল গনি হাজীর ৫ তলা বিল্ডিংটি ঝুঁকিপূর্ণ বলে পরিকল্পিত ভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২৬ই এপ্রিল) ঘটনাস্থল থেকে জানা যায়, বেনাপোলের বিশিষ্ট সি এন্ড এফ এজেন্ট ব্যবসায়ি মৃত আব্দুল গনি হাজীর ১ম স্ত্রীর এক মাত্র কন্যা নাসিমা বেগম জানান, আমার পিতা মৃত আব্দুল গনির মৃত্যুর পর থেকে আমার সৎ ভাই আমিনুর রহমান আমার এবং আমার মায়ের উপর নানান ভাবে অত্যচার চালাচ্ছে শুধু মাত্র আমার পিতার রেখে যাওয়া সম্পত্তি থেকে বেদখল করার জন্য। আমার পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত বেনাপোলে স্বনামধন্য সি এন্ড এফ লাইসেন্স মেসার্স গনি এন্ড সন্স, বেনাপোল বাজারে অবস্থিত ৫ তলা বিল্ডিং এবং মাঠান জমির কোন অংশিদারিত্ব দিচ্ছিলো না। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মাঝে আপোষ হয় যে মেসার্স গনি এন্ড সন্স নামিয় সি এন্ড এফ লাইসেন্সটি আমার মা এবং আমি আমার সৎ ভাই আমিনুর রহমান ঝন্টুর নামে লিখে দিলে বিল্ডিং এবং মাঠান জমিতে ভোগদখল করতে পারব। আমার বৃদ্ধ মা মনোয়ারা বেগম এবং আমি অসহায় বিধায় আমার সৎ ভাই প্রভাবশালী আমিনুর রহমান এর কথায় রাজি হয়ে প্রস্তাব মেনে নেয় এবং আমারা লাইসেন্সটি লিখে দেয়। তারপর থেকেই আমার পৈতৃক সম্পত্তি থেকে বিতাড়িত করতে চলছে নানা ধরনের পায়তারা।

সর্বশেষ গত ২৪ এপ্রিল আমিনুর রহমান আমার পৈত্রিক ভবন এর ৫ তলার ছাদ ভাঙ্গা জন্য প্রচেষ্টা করলে আমি এবং আমার মেয়ে বেনাপোল পোর্ট থানার সহায়তা কামনা করলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল হোসেন ভূঁইয়া স্থানীয় বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ এর সভাপতি আলহাজ্ব এনামুল হক মুকুল,শার্শা উপজেলা বাস্তহারা লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলী সহ গন্যমাণ্য ব্যাক্তিবর্গকে থানায় ডেকে নির্দেশনা দেন যে বিষয়টি একত্রে বসে বন্ঠন নামা করে দিতে। সেই মোতাবেক আমিনুর রহমান  তার বৈমাতা ও বোন কে তাদের প্রাপ্য অংশ (৩য় তলার ২ টি ফ্লাট ও নিচে ২ টি দোকান) ৩০০ টাকার নন জুডিশিয়াল স্টাম্পে (বন্ঠন নামা) লিখে দিবেন। বন্ঠন নামা খসড়ার পরপরই শুরু হয় নতুন এক নাটক।

এক দিন না যেতেই আমার সৎ ভাই আমিনুর রহমান  মামা আমাদের বাড়ির পাশের বিল্ডিং এর মালিক কালু বিহারি ও জাহাঙ্গীর বিহারিকে দিয়ে বেনাপোল পৌরসভায় আমাদের ৫ তলা বিল্ডিং ঝুঁকিপূর্ণ মর্মে মিথ্যা অভিযোগ করান যা খুবই নিন্দানিয়। মৃত আব্দুল গনি হাজীর ১ম স্ত্রীর কন্যা নাসিমা বেগম আরও জানান, শুধুমাত্র আমার এবং আমার মাকে আমার পিতার সম্পত্তি থেকে মালিকানা না দেবার জন্য আমার প্রভাবশালী ভাই এই সব নাটকীয়তায় মেতেছেন। আমি সাংবাদিক ও প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি আমার অসুস্থ মা এবং আমাকে আমার পিতার রেখে যাওয়া সম্পত্তি বুঝিয়ে দিতে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বাড়ির মালিক জানান, মৃত গনী হাজীর বাড়ীর পশ্চিম পাশে সরকারি জায়গায় পূর্বে মিরাজ ডাক্তারের বিল্ডিং ছিলো যেটা রেলওয়ের জমিতে পড়ার কারনে উচ্ছেদ হওয়ার গনী হাজীর বিল্ডিং অপসারন হওয়া সে অংশ প্লেষ্টার না থাকার কারনে সেখানকার ছবি দিয়ে বিভিন্ন রকম অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি স্বার্থনেশি মহল। এটা খুবই নিন্দানিয়। 

বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, গত ২৪ তারিখে ভবেরবেড় ষ্টেশনস্থ পারিবারিক বিল্ডিংয়ের বিষয় নিয়ে মুঠোফোনে আমাকে একটি অভিযোগ জানালে আমি তাদের থানায় ডেকে গ্রামের গণ্যমাণ্য ব্যাক্তি বর্গের সাথে বসে মিটিয়ে নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলাম। তারা দুই পক্ষ আমাকে নিজেরা বিষয়টি মিটিয়ে নিবেন বলে আশ্বাস করে ছিলেন পরবর্তীতে কি হয়েছে আমি জানি না।


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD