বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

আপডেট
*** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***                     *** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***
সংবাদ শিরোনাম :
শার্শার সাতমাইল পশু হাটে ব্যাপক অনিয়ম নিরব উপজেলা প্রশাসন! বেনাপোলে অনলাইন প্রতারক চক্রের দুই সদস্য আটক বেনাপোলে রাজস্ব কর্মকর্তার উপর হামলাকারীদের আটকের দাবিতে মানববন্ধন চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের তৎপরতায় মাদক সহ চালক গ্রেপ্তার চাকরি হারালেন ঘুষের টাকা সহ আটক কাস্টম কর্মকর্তা মুকুল বেনাপোলে প্রশাসনকে বোকা বানাতে স্বর্ণ চোরাকারবারিদের লোক দেখানো ব্যবসা বেনাপোলে কৃত্রিম যানজটের শিকার ৪ গ্রামবাসি সহ ভারতগামী পাসপোর্ট যাত্রীরা বাসার দরজার তালা ভেঙ্গে কয়েক লক্ষ টাকার স্বর্ণালঙ্কার লুট, থানায় অভিযোগ দায়ের ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে গ্যাস সিলিন্ডার রিফিল করা হচ্ছে সোনাইমুড়ীতে যৌতুকের মামলায় স্বামী শ্রীঘরে

বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নেই ১২ বছর নির্বাচন চাই এলাকাবাসি

বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নেই ১২ বছর নির্বাচন চাই এলাকাবাসি

সুমন হোসাইন: 

সীমানা জটিলতার মামলার অজুহাতে বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন বন্ধ থাকায় কাঙ্খিত উন্নয়ন, নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বেনাপোল ইউনিয়নবাসি। গত ২৮শে নভেম্বর-২১ শার্শার উপজেলার ১০ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও ৪ নম্বর বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের সীমানা জটিলতা সহ মামলা থাকায় এখানো নির্বাচন হইনি। গত ৫ই জুলাই ২০১১ সালে নির্বাচনের পর দীর্ঘ ১২বছর পরও নির্বাচন নেই এই গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন পরিষদে। ফলে মানসম্মত সেবা পাচ্ছেনা সাধারণ মানুষ। সারাদেশ যখন উন্নায়নে ভাসছে জরাজীর্ণ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বহুতল ভবন পাচ্ছে সেখানে নিভু নিভু ভাবে দাঁড়িয়ে আছে বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ।

শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে বেনাপোল ইউনিয়নের ১১টা গ্রামের অংশ নিয়ে বেনাপোল পৌরসভা গঠন হয়। গত ১৩ই জানুয়ারী ২০১১ সালে বেনাপোল পৌরসভার প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত এবং একই বছরে ৫ই জুলাই বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হয়। বেনাপোল পৌরসভার মেয়র হন আশরাফুল আলম লিটন এবং বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হন আলহাজ্ব বজলুর রহমান। এর পর ২০১৩ সালে বেনাপোল পৌরসভার সীমানা বাড়ানোর করার কাজ শুরু করলে বেনাপোলের নারায়ণপুর গ্রামের মেয়র সমার্থীত আওয়ামীলীগ নেতা হাফিজুর রহমান তার এলাকার কিছু অংশ পৌরসভার সীমানায় অন্তর্ভুক্তি না করার জন্য উচ্চ আদালতে একটি রিট করেন। একই ভাবে ছক অংকন করে মিয়াদ আলী মেম্বার, আজিবর রহমান সহ আরো ১০ জন উচ্চ আদালতে আরও আটটি রিট মামলা করেন। যার প্রতিটি মামলার বিষয়বস্তু ছিলএকই রকম । ফলে বেনাপোল ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ২০১১ সালের পর আর নির্বাচন হয়নি।

  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় অনেক নেতা জানিয়েছেন, বেনাপোল পৌরসভার সাবেক মেয়র ও বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ছক এঁকে নির্বাচন না হওয়ার জন্য মামলা গুলো করিয়েছেন। এছাড়াও তাদের দুজনের নিরবিছিন্ন আঁতাত আছে।
  • আলোর পথ গয়ড়ার সাধারন সম্পাদক মারুফ জানান, বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড গয়ড়া গ্রামের মেম্বার রায়হান আলী মৃত্যু বরন করলে নির্বাচন না হওয়ায় এই ওয়ার্ডে দীর্ঘ ৬বছর যাবৎ মেম্বর শুন্য হয়ে আছে যার ফলে এই ওয়ার্ডে কাঙ্খিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এলাকাবাসি।
  • এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘ সময়ে ভোট না হওয়ায় ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিরা একক আধিপত্য বিস্তার করে চলছে। আবার কোনটিতে জনপ্রতিনিধি মৃত্যুর হলেও নির্বাচন না হওয়ায় শুন্য ভাবে পড়ে আছে । ফলে এলাকার উন্নয়ন কার্যক্রম থেকে শুরু করে সব ধরনের কর্মকান্ডে পদে পদে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এসব ইউনিয়নের বাসিন্দাদের।

বেনাপোল ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি সাইদুর রহমান তুহিন জানান, দীর্ঘ ১২বছর ধরে মামলা জটিলতায় ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন না থাকায় ইউনিয়নের সাধারন ভোটাররা নির্বাচন দাবি করে আসছে। তাছাড়া নির্বাচন প্রতিটি নাগরিকের অধিকার জনগনের কাঙ্খিত সেবা পেতে নির্বাচনের বিকল্প নেই। এছাড়া বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের প্রার্থী হওয়ার আশা পোষণ করেন এমন নেতাকর্মীরা ভোট না হওয়ায় হতাশ। দীর্ঘ ১২ বছর নির্বাচন না হওয়ায় অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। কাঙ্খিত উন্নয়ন সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারন ভোটারদের দাবি দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি করে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা হোক।


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD