শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৪:২৪ অপরাহ্ন

আপডেট
*** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***                     *** সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698  ***              সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিতে যোগাযোগ করুন - 01312-556698 ***
সংবাদ শিরোনাম :

আদালতে মামলা করায় বাদীকে প্রাননাশের হুমকী ও সম্পত্তি জবরদখলের অভিযোগ

আদালতে মামলা করায় বাদীকে প্রাননাশের হুমকী ও সম্পত্তি জবরদখলের অভিযোগ

সুমন হোসাইনঃ

যশোরের ঝিকরগাছা পল্লীতে পৈত্রিক সম্পত্তি ফেরত নিতে আদালতে মামলা করায় বাদীকে প্রাননাশের হুমকী দিয়েছে বলে অভিযোগ মিলেছে। এমনকি নালিশী জমিতে জোর পূর্বক বনজ ও ফলজ গাছের চারা লাগিয়ে দখল দারিত্ব প্রতিষ্ঠার চেষ্ঠা চালাচ্ছে বিবাদী।

গত শনিবার (১২ আগস্ট) বিবাদীর বড় পুত্র আমান উল্লাহ (৩৮) মোবাইল ফোনে মামলার বাদী শেখ বিল্লাল হোসেনকে প্রাননাশের হুমকী দিয়েছে বলে জানা গেছে। অভিযুক্ত আমান উল্লাহ ও তার ভাই ইব্রাহিম (২৫) ঝিকরগাছা উপজেলার দেউলি শেখপাড়া গ্রামের আবু জাফরের ছেলে। ভূক্তভোগী বেনাপোল পৌরসভাধীন দিঘীরপাড় গ্রামের শেখ বিল্লাল হোসেন জানান,ঝিকরগাছা উপজেলার ১৪১নং দেউলী মৌজায় ২৯৪ দাগে তাদের ৩৩শতক পৈত্রিক সম্পত্তি রয়েছে। গত ১০ জুন২০২৩ইং তারিখে তিনি তার জমিতে অবস্থিত গাছ গাছালি তদারকি করিতে গেলে অভিযুক্তরা জানায়,বাদীর ভাই শেখ হাসেম আলীর নিকট হইতে ৭ শতক জমি (নালিশী) ১লাখ ৫০হাজার টাকা মূল্যে খরিদ করিয়া তাদের মাতা মোছাঃ রাজিয়া বেগমের নামে রেজিস্ট্রি করিয়া নিয়াছে। বাদীকে গোপন করিয়া পৈত্রিক সম্পত্তি ক্রয় করিবার কারন জিজ্ঞাসায় তাহারা ক্ষিপ্ত হইয়া বিল্লাল হোসেনকে গালিগালাজসহ মারতে উদ্যত হয়।পরবর্তীতে বিল্লাল হোসেন তার ভোগ-দখলীয় পেত্রিক সম্পত্তির অংশ পুনউদ্ধারে আদালতের শরনাপন্ন হন এবং যশোরের বিজ্ঞ সহকারী জজ,শার্শা আদালতে মামলা করেন। যাহার মামলা নং- ২৭/২৩ এবং তারিখ ১৮/৭/২০২৩ ইং। মামলার পর থেকেই আমানউল্লাহ গংরা বিল্লাল হোসেনকে প্রাননাশের হুমকীসহ ক্রয়কৃত সম্পত্তি দখল নিতে নানামূখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। দেউলী গ্রামের বাসিন্দা আলামিন,সাবিলা,বাসারসহ একাধিক প্রতিবেশী নালিশী সম্পত্তির অংশ বিল্লালের ভোগ দখলে রয়েছে বলে নিশ্চিত করে জানান,আমান উল্লাহ গংরা পৈত্রিক সম্পত্তির ওয়ারেশ হাশেম আলীর অংশ ক্রয় করে জমির দখল না পাওয়ায় বিল্লালের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়েছে। গত বৃহষ্পতিবার বিবাদীরা জোর পূর্বক বিল্লাল হোসেনের ভোগ-দখলীয় জমিতে গাছের চারা লাগিয়েছেন বলে তারা আরো জানান। অভিযুক্তরা দুষ্কৃতকারী হওয়ায় যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধার আশঙ্কা করছেন প্রতিবেশীরা।

প্রাননাশের হুমকী বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত আমানউল্লার মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও ফোন না ধরায় বিবৃতি জানা যাইনি। বর্তমানে বিল্লাল হোসেন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য বিবাদমান গোলযোগ মিমাংসা চেষ্ঠায় ব্যর্থ হওয়ায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে মামলার বাদী বিল্লাল হোসেন প্রশাসনের শরনাপন্ন হবেন বলে জানিয়েছেন।


Search News




©2020 Daily matrichaya. All rights reserved.
Design BY PopularHostBD